পাঁকা কলা ভুড়ি কমাতে সাহায্য করে

ওয়েট ম্যানেজমেন্ট প্রোগ্রাম অফ আটলান্টা তাদের একটি গবেষণাপত্রে পেটের মেদ কমাতে পাকা কলার ভূমিকার কথা জানিয়েছে। বলা হয়েছে, রোজ দুটো পাকাকলা খেলে ভুঁড়ি কমবেই। কিন্তু কীভাবে? পাকাকলায় রয়েছে প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়ম। পটাশিোম শরীরে পানি জমতে দেয় না। অনেক সময়ে নানা অসু’স্থতার কারণে, পেটে পানি জমে, পেট ফুলে যায়। রোজ পাকাকলা খাওয়ার অভ্যাস তৈরি করে ফেললে, এই সমস্যা থেকে মুক্তি মিলবে, আপনাকে অনেকটা রোগাও দেখাবে।

পেটের মেদ নিয়ে সমস্যায় পড়তে হয় না এমন মানুষ নেই বললেই চলে। শরীরের অন্যান্য অংশের মেদ কমলেও অনেক চেষ্টার পরে পেটের মে’দ কমে না। তবে খাবার তালিকা মেনে চললে এবং ওয়ার্ক আউট করলে পেটের মেদ কমানো সম্ভব। পেটের মেদ বা ভুড়ি কমায় এমন একটি খাবার পাকাকলা। বলা যায় পেটের মেদ কমাতে পাকা কলার জুড়ি মেলা ভার।

পাকাকলা প্রো-বায়োটিক উপাদানে ভ’রপুর। ফলে অ’ন্ত্রে উপকারী ব্যাকটিরিয়ার পরিমাণ বৃ’দ্ধি পায়। এই জাতীয় ব্যাকটিরিয়া হজ’মশ’ক্তি বাড়ায়। আর হজম শক্তি বৃদ্ধি পেলে শরীরে চট করে মেদ জমতে পারে না। ভুঁ’ড়িও গায়েব।

ভিটামিন-বি-তে সমৃদ্ধ পাকাকলা। ভিটামিন-বি শরীরে মেদ জমতে দেয় না। যেসব জিন মেদ জমার জন্য দায়ী, সেগুলোকে সরাসরি প্রভাবিত করে । ফলে ভুঁড়ি অনেকটাই কমে নিয়মিত কলা খাওয়া শুরু করলে দেখবেন, বেশি তেলমশ’লাযুক্ত খাবার খাওয়ার ইচ্ছে কমে গিয়েছে। ফলে অল্প সময়ের মধ্যেই ভুঁ’ড়ি কমে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page